How to test ovulation naturally at home| ঘরে বসে ওভুলেশন টেস্ট করার উপায় | ওভুলেশন টেস্ট কিট ব্যবহার

LH Kit is an ovulation test Cassette to detect an increase in LH in a woman’s urine

ডিম্বাশয়  থেকে মাসিকের ১৩-১৬ তম দিনের মধ্যে ( যাদের নিয়মিত মাসিক হয় ) ডিম্বাণু  বের হয়। এই সময় শুক্রাণু ডিম্বাণুকে নিষিক্ত করার সুযোগ পায় এবং গর্ভধারণ সম্ভম হয়। ডিম্বাণু  বের হবার ২৪ ঘন্টা আগেই Luteinizing  Hormon বেশি পরিমাণে  বের হয়। “LH Kit” দিয়ে এই হরমোনের উপস্থিতি পরীক্ষা করে গর্ভধারণের সময় নির্ধাণের  করা যাবে। 

স্বামী স্ত্রী যারা চাকরি করে প্রত্যেক সপ্তাহে যারা বাড়ি আসে তাদের জন্য ওভুলেশন টেস্ট কিট ব্যবহার বেশি কার্যকরী।

কখন টেস্ট করবেন?

১। যাদের নিয়মিত মাসিক হয়  তারা মাসিকের ১২ তম দিন থেকে ১৮ তম দিন পর্যন্ত প্রতিদিন ২বার দিয়ে মূত্র পরীক্ষা করবেন।  মাসিক নিয়মিত না হলে  নিম্নের চাট অনুসরণ করতে পারেন। পরীক্ষা যে দিন শুরু করবেন  সেই দিন থেকে ৫ দিন প্রতিদিন ২ বার টেস্ট করবেন। পজেটিভ হওয়ার পর টেস্ট করার দরকার নাই।

২। একটা ছোট পরিষ্কার পাত্রে মূত্র সংগ্রহ করুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে দিনের ১ম মূত্র পরীক্ষা করবেন না।

৩। প্রতিদিন একই সময়ে পরীক্ষা করলে ভাল হয় । সকাল ১১-১২ টা এবং রাত ৭-৮ টার মধ্যে দিনে দুইবার পরীক্ষা করবেন।

৪। পরীক্ষা করার ২ ঘন্টা আগে থেকে পানি বা তরল খাবার গ্রহন করবেন না।

How to test ovulation naturally at home| ঘরে বসে ওভুলেশন টেস্ট করার উপায় | ওভুলেশন টেস্ট কিট ব্যবহার
How to test ovulation naturally at home| ঘরে বসে ওভুলেশন টেস্ট করার উপায় | ওভুলেশন টেস্ট কিট ব্যবহার

কিভাবে টেস্ট করবেনঃ

১। প্যাকেট থেকে   LH strip  বের করুন । বের করার পর বেশী দেরী করবেন না ।

২। মূত্র সংগ্রহ করে LH strip  এর তীর চিহ্নিত দাগ পযন্ত ১০ সেকেন্ডের জন্য ডুবাবেন । অত:পর strip টি একটি সমতল জায়গায় রাখুন।

৩। ফলাফল  দেখুন সাথে সাথে । দশ মিনিট পযন্ত ফলাফল দেখা যাবে। 

পারিবারিক পেনশন মঞ্জুরির প্রয়োজনীয় ফরম, সনদ ও কাগজপত্রাদি | পারিবারিক পেনশন ফরম ২.২

যদি Cassette দিয়ে ওভুলেশন পরীক্ষা করা হয় তাহলে

কিভাবে টেস্ট করবেনঃ

১। প্যাকেট থেকে একটি   “Cassette বের করে সমতল জায়গায় রাখুন ।

২। ড্রপারের সাহায়্য ৫ (পাঁচ) ফোটা মূত্র (চিত্র অনুযায়ী)নির্দিষ্ট স্থানে ঢালুন

৩। ফলাফল  দেখুন সাথে সাথে । দশ মিনিট পযন্ত ফলাফল দেখা যাবে। 


পরীক্ষার ব্যাখ্যাঃ

১। পজিটিভ টেস্টঃ

যদি দুই দাগ  দেখা যায়  এবং দুটি দাগের রং সমান ঘনত্বের হয়।এক্ষেত্রে ডিম্বাণু পরর্বতী ২৪-৪৮ ঘন্টার মধ্যে  বের হবে। এই ফলাফলের ২৪ ঘন্টা পর অন্ততঃ ৩-৪ বার মেলামেশা করুন।

১। পজিটিভ টেস্টঃযদি দুই দাগ  দেখা যায়  এবং দুটি দাগের রং সমান ঘনত্বের হয়।এক্ষেত্রে ডিম্বাণু পরর্বতী ২৪-৪৮

Ibas++ gpf balance check | online gpf account balance check | ibas++ gpf statement 2022 | অনলাইনে জিপিএফ হিসাব দেখার নিয়ম

২। নেগেটিভ  টেস্টঃ

যদি একটি মাত্র দাগ দেখা যায় অথবা উপরে ( কন্ট্রোল ) দাগের নীচে দাগ হালকা হয়  এর মানে ডিম্বাণু পরিস্ফুটনের সময় হয়নি। আপনাকে দিনে দুই বার পরীক্ষা চালিয়ে  যেতে হবে।

 ৩। অকাযকর টেস্টঃ

যদি  কোন দাগ  দেখা না যায়, তাহলে নতুন একটা LH kit দিয়ে পরীক্ষা করুন।

৪। সবার মাসিকের মাঝামাঝি সময়ে ডিম্বাণু  পরিস্ফুটন হয় না । যদি ৫ দিন  টেন্ট করার পর ও পজিটিভ  রেজাল্ট না আসে, তাহলে আরও ২-৩ দিন LH Kit  দিয়ে টেস্ট করে দেখতে পারেন। এর পর ও পজেটিভ  রেজাল্ট না আসলে, আপনার ডাক্তারে সাথে যোগাযোগ করুন।  

আপনার মাসিক কত দিনেকোন দিন  থেকে টেস্ট শুরু করবেন
২১ দিনের৬ তম দিন  থেকে
২২ দিনের৬ তম দিন  থেকে
২৩ দিনের৭ তম দিন  থেকে
২৪ দিনের৭ তম দিন  থেকে
২৫ দিনের৮ তম দিন  থেকে
২৬ দিনের৯তম দিন  থেকে
২৭ দিনের১০ তম দিন  থেকে
২৮ দিনের১১ তম দিন  থেকে
২৯ দিনের১২ তম দিন  থেকে
৩০ দিনের১৩তম দিন  থেকে
৩১ দিনের১৪তম দিন  থেকে
৩২ দিনের১৫ তম দিন  থেকে
৩৩ দিনের১৬তম দিন  থেকে
৩৪ দিনের১৭তম দিন  থেকে
৩৫ দিনের১৮ তম দিন  থেকে
৩৬ দিনের১৯ তম দিন  থেকে
৩৭ দিনের২০ তম দিন  থেকে
৩৮ দিনের২১ তম দিন  থেকে
৩৯ দিনের২২ তম দিন  থেকে
৪০ দিনের৩০ তম দিন  থেকে
ওভুলেশন টেস্ট কিট ব্যবহার

শুক্রাণু কি | শুক্রাণু মানে কি | ডিম্বাণু ও শুক্রাণু কি | ডিম্বাণু ও শুক্রাণু কিভাবে মিলিত হয় বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

ওভুলেশন কি ? ওভুলেশন কিভাবে হয় ? ডিম্বাণু কত দিন জীবিত থাকে|গর্ভধারণের জন্য সবচাইতে উপযুক্ত সময় বোঝার উপায় এখান হতে জেনে নিতে পারেন।

To get Ovulation Test Strips click here.

Leave a Reply