পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম কি ? পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম লক্ষণ ?

পোস্ট সামারীঃ

  • পলিসিস্টিক ডিম্বাশয় বাংলা অর্থ ?
  • পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম কি ?
  • পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম লক্ষণ ?
  • পলিসিস্টিক ওভারি কেন হয় ?
  • পলিসিস্টিক ওভারি চিকিৎসা বা পলিসিস্টিক ওভারি সারানোর ঘরোয়া চিকিৎসা ?
  • পলিসিস্টিক ওভারি ভালো হলে কি বাচ্চা হবে ?

To get latest update news form “ google news” about infertilities .

পলিসিস্টিক ডিম্বাশয় বাংলা অর্থ ?

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম বা পলিসিস্টিক ডিম্বাশয় (পিসিওএস) হচ্চে মেয়েদের মধ্যে ছেলেদের হরমোন যথা অ্যান্ড্রোজেন পরিমাণ বেড়ে যাওয়া। পিসিওএস হরমোনজিনিত রোগ।

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম কি ?

পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম হচ্ছে এইরকম ১টি অবস্থা, যেখানে নারীর ডিম্বাশয়ের পুরুষ হরমোন (এন্ড্রোজেন) সৃষ্টি করে। স্বাভাবিক অবস্থায় যা  অত্যন্ত নগণ্য পরিমাণেই নিঃসৃত হয়। পলিসিস্টিক ওভারিতে ডিম্বাশয়ে ছোট ছোট সিস্ট থাকে। এ পরিস্থিতিতে একজন মহিলার ওভুলেশন করার জন্য পর্যাপ্ত হরমোন থাকে না। ফলে ওভুলেশন না হওয়ার জন্য ছোট ছোট সিস্ট সৃষ্টি হয়। এ সিস্টগুলো এন্ড্রোজেন নামক হরমোনটি প্রস্তুত করে। এর ফলে মেয়েদের মাসিকও বিলম্বিত হয় কিংবা বেশি অধিক হয়।

আরও জানুনঃ টেস্ট টিউব বেবি কি ? টেস্ট টিউব বেবি কিভাবে হয় ? এক্টোপিক প্রেগন্যান্সি কাকে বলে এবং এক্টোপিক প্রেগন্যান্সি কেন হয় ?

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম লক্ষণ ?

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম কি
পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম কি
  • অবাঞ্ছিত লোম,
  • ব্রণ,
  • মাসিক অনিয়মিত হওয়া;
  • মুখ তৈলাক্ত হয়ে যাওয়া,
  • ঘাড়ে কালো দাগ,
  •  চুল পড়ে যাওয়া,
  • ওজন বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি।
  • ডায়াবেটিস
  • হাই প্রেসার
  • এর রিজন সম্পর্কে এখনো স্পষ্ট আন্দাজ পাওয়া যায়নি। এর ফলে নারীদের ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স তৈরি হয়। ফলে শরীর ইনসুলিনকে প্রয়োগ করার জন্য পারে না।

আরও জানুনঃ গর্ভবতী মায়ের খাবার তালিকা এবং গর্ভবতী মায়ের খাবার ?

পলিসিস্টিক ওভারি কেন হয় ?

  • এটি জেনেটিক্যালি বাহিত হতে পারে।
  • পরিবারের বোন বা মায়ের থাকলে কন্যারও পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম( পিসিওএস)  সমস্যা  হতে থেকে পারে।
  • পরিবেশগত কারণ;
  • শারূরিক শ্রম কম করা;
  • খাদ্যভাস সঠিক না হওয়া;
  • ফাস্টফুড জাতীয় খাবারের প্রতি বেশি আকর্ষণ ;
  • অত্যধিক ফ্যাট জাতীয় খাবার খাওয়া;
  • অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন;
  • মানসিক চাপ।

আরও জানুনঃ গর্ভবতী মায়ের যত্ন কি কি এবং গর্ভবতী মায়ের প্রথম তিন মাসের সতর্কতা ? গর্ভবতী মায়ের কি কি চেকআপ করা দরকার ?

পলিসিস্টিক ওভারি চিকিৎসা বা পলিসিস্টিক ওভারি সারানোর ঘরোয়া চিকিৎসা ?

সবুজ পাতা জাতীয় সবজি খাওয়াঃ

সবুজ পাতা জাতীয় সবজিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ লোহা, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম এবং ভিটামিন কে,সি, ই এবিং বি। ভিটামিন বি  পিসিওএস প্রতিরোধের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

নিয়মিত ফল খাওয়াঃ

ফলে fiber, vitamins, minerals and phytonutrients রয়েছে। যে সব ফলে Glycemic index কম যেমন- আপেল, কলা,আঙুর, আম, চেরি, পেয়ারা,নাশপাতি কমলা ইত্যাদি।

রঙ্গিন ফল খাওয়াঃ

আরও জানুনঃ অ্যামনিওটিক ফ্লুইড কি ? অ্যামনিওটিক ফ্লুইড এর কাজ কি ? গর্ভফুল কি ? গর্ভবতী কত দিন পর সন্তান ভূমিষ্ঠ হয় ?

রঙ্গিন ফলে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে যা অক্সিডেটিভ স্ট্রেস দূর করে , এটি পিসিওএস রোগীর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

ভালো ফ্যাটঃ

বাদাম, অলিভ অয়েল, ডিম, মাছ , পিনাট বাটার, অ্যাভোকাডো ভাল ফ্যাটের উৎস যা শরীরের হরমোন ভারসাম্য রক্ষা , ওজন নিয়ন্ত্রণ এবং প্রজনন স্বাস্থ্য বাড়ায়।

আরও জানুনঃ গর্ভাবস্থায় বা প্রেগনেন্ট হলে নারীর শরীরের পরিবর্তন বা লক্ষণ দেখা যায় ?

পলিসিস্টিক ওভারি ভালো হলে কি বাচ্চা হবে ?

পলিসিস্টিক ওভারি ভালো হলে মা হওয়া সম্ভব। তবে গর্ভধারণের শুরু থেকে ডাক্তারের পরমর্শে অনুযায়ী সাবধানে থাকতে হবে।

রিলেটেড ট্যাগ:

পলিসিস্টিক ডিম্বাশয় বাংলা অর্থ ?,পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম কি ?,পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম লক্ষণ ?,পলিসিস্টিক ওভারি কেন হয় ?, পলিসিস্টিক ওভারি চিকিৎসা বা পলিসিস্টিক ওভারি সারানোর ঘরোয়া চিকিৎসা ?, পলিসিস্টিক ওভারি ভালো হলে কি বাচ্চা হবে ?

Leave a Reply